Home মতামত মূর্খদের হোটেলেই লেখা থাকে ‘নো-বিফ’

মূর্খদের হোটেলেই লেখা থাকে ‘নো-বিফ’

2
0
No Beef Restaurant
No Beef

No Beef

দেশের কিছু হোটেল-রেস্তোরাতে দেখা গেছে- লেখা থাকে ‘নো-বিফ’, অর্থ্যাৎ গরুর গোশত নেই। নাউযুবিল্লাহ!
অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে- এদেশের জনসংখ্যার ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতম একটি অংশের কারণে ৯৮ ভাগ মুসলমানদের প্রিয় ও সুস্বাদু খাবার আমিষের প্রধান উৎস গরুর গোশত থেকে বঞ্চিত করার অপচেষ্টা করছে। নাউযুবিল্লাহ!
এটা মূলত ওই সকল হোটেলওয়ালাদের চরম জিহালতী ও অথর্বতা। এবং এটা বিজাতী-বিধর্মী প্রীতিরই বহিঃপ্রকাশ। নাউযুবিল্লাহ! কেননা যে সমস্ত হোটেলগুলোতে গরুর গোশত নেই, সেগুলোর প্রায় সবই কোন বিধর্মীদের নয় বরং নামধারী মুসলমানদের হোটেল।
কাজেই প্রত্যেক হোটেলওয়ালাদের জন্য ফরয-ওয়াজিব হলো- বিধর্মীদের মুহব্বত বাদ দিয়ে মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের মুহব্বতে হোটেলে গরুর গোশত রাখা।
Source: Al Ihsan